খালেদা জিয়ার মামলার রায় দেখেই পরবর্তী করণীয় ঠিক করবে বিএনপি : মোয়াজ্জম হোসেন আলাল

এ জেড ভূঁইয়া আনাস : বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া মঈন উদ্দিন, ফখরুদ্দিনের কারাগারে ছিলেন। শেখ হাসিনার কারাগারেও ছিলেন টানা ৯২ দিন। বাসার সামনে বালুর ট্রাক, বিদ্যুৎ লাইন বিচ্ছিন্ন, টেলিফোন লাইন বিচ্ছিন্ন, ইন্টারনেট বিচ্ছিন্ন, পিপার স্প্রে দ্বারা আক্রমণ। এটা কারাগারের চেয়েও খারাপ। সে ক্ষেত্রে সরকার যদি বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে আশঙ্কামুক্ত হয় তাহলে ভালো। দেখি সরকার তাকে কারাগারে পাঠাতে সাহস পায় কিনা? টিভিএনএ’কে দেওয়া একান্ত সাক্ষাতকারে এসব কথা বলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।

তিনি বলেন, পৃথিবীর কোথাও সংসদ বহাল রেখে কোন নির্বাচন হয় এমন বিধান নেই। তাই হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী রেখে, সংসদ বহাল রেখে কোন নির্বাচন করতে দেওয়া হবে না। তবে সংসদ ভেঙ্গে দিলে এবং প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতা হ্রাস করা হলে বিএনপি সেক্ষেত্রে সহযোগিতা করতে প্রস্তুত আছে।

আলাল বলেন, আদালত যদি মিথ্যা মামলায় খালেদা জিয়াকে কোন দ- দেয় সেক্ষেত্রে উচ্চ আদালতে আপিল করে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। সরকার বেগম খালেদা জিয়ার মামলাকে রায়ের পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার দুঃসাহস দেখাচ্ছে কারণ তারা জনগণকে ভয় পায়। সাধারণ মানুষের সমর্থন কোন দিকে ঝুঁকেছে সেটা সরকার ঠিক ভাবেই টের পেয়েছে। তাই জনগণ নয় তারা অবৈধ যেই পন্থায় ক্ষমতায় টিকে থাকা যাবে সে পন্থা খুঁজতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। আওয়ামীলীগ আমাদের চেয়ে রাজনৈতিকভাবে শক্তিশালী না হলেও তারা রাজনৈতিকভাবে অনেক বেশি দুষ্টু বুদ্ধির অধিকারী, অনেক বেশি অসত্য প্রচারে অভিজ্ঞ ও ফ্যাসিবাদি চরিত্রের দিক থেকে তারা আমাদের চেয়ে অনেক বেশি এগিয়ে আছে। গণতন্ত্র শুধুমাত্র রাস্তার আন্দোলনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত হয় এমন নয়। আমরা আন্দোলনে সফল। আওয়ামী লীগের আন্দোলনের সংজ্ঞায় যা রয়েছে তা আমাদের মধ্যে নেই। তাই আওয়ামীলীগ মনে করে আমরা ব্যর্থ।

তিনি বলেন, ৫ জানুয়ারির মতো আরেকটি নির্বাচন দিতে সরকার দু:সাহস করবে না। নির্বাচনের আগের দিন পর্যন্ত আমরা এই বিশ্বাস নিয়ে থাকতে চাই। বিএনপি যতবার দেশ পরিচালনার দায়িত্ব পেয়েছে। প্রতিবারই নির্বাচনের মাধ্যমেই ক্ষমতায় গিয়েছে। আমরা নির্বাচনমুখি দল আমরা কেন নির্বাচন বয়কট করবো? নির্বাচন বয়কট করার মতো পরিস্থিতি যাতে তৈরি না হয় তার দিকে আমরা সচেষ্ট থাকবো এবং শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী রেখে নির্বাচন সেটাও আমরা কোনভাবেই হতে দিবো না। মাঝামাঝি যে কোন পন্থা সরকারকে বের করতে হবে। সেক্ষেত্রে আমরা সরকারকে সহযোগিতা করবো।

 

You may use these HTML tags and attributes: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>